কোম্পানি দেওয়ানি লাভ করে কীভাবে? দেওয়ানি লাভের গুরুত্ব লেখ।

কোম্পানির দেওয়ানি লাভ

ইংরেজরা মিরকাশিমের বিরুদ্ধে যুদ্ধের সময় মিরজাফরকে দ্বিতীয়বারের জন্য বাংলার সিংহাসনে বসায়। এই সময় থেকে কোম্পানির আধিপত্য দ্রুত বৃদ্ধি পায়।

(১) বাংলার নবাবের সঙ্গে চুক্তি = বক্সারের যুদ্ধ এবং মিরজাফরের মৃত্যুর নজমউদ্দৌলাকে সিংহাসনে বসানো হয়। কোম্পানি এক চুক্তির মাধ্যমে নজমউদ্দৌলাকে কোম্পানির পুতুলে পরিণত করে বাংলার যাবতীয় সামরিক ও প্রশাসনিক ক্ষমতা দখল করে নেয়।

(২) অযোধ্যার নবাবের সঙ্গে চুক্তি = যুদ্ধের পর পরাজিত অযোধ্যার নবাব সুজাউদ্দৌলা কোম্পানির সঙ্গে এলাহাবাদের প্রথম সন্ধি (১৭৬৫ খ্রি.) নামে এক চুক্তি স্বাক্ষর করতে বাধ্য হন। এর দ্বারা কোম্পানি তাঁর কাছ থেকে ৫০ লক্ষ টাকা এবং কারা ও এলাহাবাদ প্রদেশটি লাভ করেন।

(৩) দিল্লির বাদশাহের সঙ্গে চুক্তি = কোম্পানি দিল্লির পরাজিত মোগল সম্রাট দ্বিতীয় শাহ আলমকে এলাহাবাদের দ্বিতীয় সন্ধি (১৭৬৫ খ্রি.) স্বাক্ষরে বাধ্য করে। এই সন্ধির দ্বারা বার্ষিক ২৬ লক্ষ টাকা কর পাওয়ার বিনিময়ে সম্রাট কোম্পানিকে বাংলা, বিহার ও উড়িষ্যার দেওয়ানি অর্থাৎ রাজস্ব আদায় ও দেওয়ানি বিচারের অধিকার দেন।

দেওয়ানি লাভের গুরুত্ব

ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানির দেওয়ানি লাভের ঘটনা ভারতের ইতিহাসে খুবই গুরুত্বপূর্ণ বিষয়।

(১) আইনগত বৈধতা = ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানি পূর্বে বাংলা-বিহার-উড়িষ্যায় যে চূড়ান্ত রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিক আধিপত্য প্রতিষ্ঠা করে তার কোনো আইনগত ভিত্তি ছিল না। কোম্পানি বাদশাহের কাছ থেকে দেওয়ানির অধিকার লাভ করলে তাদের ক্ষমতা আইনগত বৈধতা পায়। ফলে কোম্পানি একটি বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান থেকে রাজনৈতিক প্রতিষ্ঠানে পরিণত হয়।

(২) নবাবের ক্ষমতা হ্রাস = দেওয়ানি লাভের পর নবাবের হাতে ক্ষমতাহীন দায়িত্ব এবং কোম্পানির হাতে দায়িত্বহীন ক্ষমতা অর্পিত হয়।

(৩) অর্থনৈতিক সমৃদ্ধি = দেওয়ানি লাভের ফলে ইংরেজ কোম্পানির আর্থিক সমৃদ্ধি দ্রুত বৃদ্ধি পায়। রাজস্ব হিসেবে আদায় করা বিপুল পরিমাণ অর্থ তারা বাণিজ্য, রাজ্যবিস্তার, সেনাদল গঠন প্রভৃতি কাজে ব্যয় করে।

(৪) রাজস্ব আদায়ের অধিকার = দেওয়ানি লাভের মাধ্যমে কোম্পানি বাংলা থেকে রাজস্ব আদায়ের অধিকার লাভ করে।

(৫) কোম্পানির মর্যাদা বৃদ্ধি = কোম্পানি রাজস্ব আদায় ও রাজস্ব সংক্রান্ত বিচার করার অধিকার লাভ করলে সমকালীন রাজন্যবর্গ ও জনসাধারণের চোখে কোম্পানির মর্যাদা খুবই বৃদ্ধি পায়।

উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীদের শুভেচ্ছা
error: সর্বস্বত্ত্ব সংরক্ষিত