১৮৫৫ সালে সাঁওতালরা বিদ্রোহ করেছিল কেন? বা সাঁওতাল বিদ্রোহের কারণ লেখ।

[] সাঁওতালদের বিদ্রোহ ছিল ‘দিকু’দের বিরুদ্ধে। সাঁওতাল পরগণাসহ অন্যান্য অঞ্চলে সাঁওতালদের কাছে ‘দিকু’রা বহিরাগত। মহাজন, ব্যবসায়ী, ইংরেজসহ বহিরাগতরা ‘দিকু’ নামে অভিহিত হত। এই দিকুদের বিরুদ্ধে সাওতালরা ক্ষোভে ফেটে পড়েছিল।

সাঁওতাল বিদ্রোহের কারণ—

১। মহাজনদের অত্যাচার—মহাজনরা সাঁওতালদের সরলতার সুযোগে নানাভাবে শোষণ করতো। এই কারণে সাঁওতালরা ক্ষুব্ধ হয় মহাজনদের উপরে।

২। অধিক রাজস্ব—জমিদাররা সাঁওতালদের কাছ থেকে বেশি হারে কর আদায় করতো। তাছাড়া জমিদার ও কর্মচারীদের নানা উপশুল্ক দিতে হত।

৩। সাঁওতালদের জমি কেড়ে নেওয়া—সাঁওতালরা পাথুরে জমি চাষযোগ্য করে তুলেছিল। অথচ সেই জমি মহাজন কিংবা ইজারাদাররা নানা অজুহাতে দখল করতো। ফলে সাঁওতালদের মধ্যে ক্ষোভের সঞ্চার হয়।

৪। ব্রিটিশ আইন—সাওতালরা নিজেদের আইনে জীবনযাপন করতো। কিন্তু ব্রিটিশ আইন প্রবর্তিত হলে তাদের চিরাচরিত সংগঠন ভেঙে যাওয়ায় তাঁরা ক্ষুব্ধ হয়।

[] ১৮৫৫ সালে বিভিন্ন কারণে সাঁওতালরা বিদ্রোহে সামিল হয়।

উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীদের শুভেচ্ছা
error: সর্বস্বত্ত্ব সংরক্ষিত