“অতঃ জনকস্য তে আদেশঃ পালনীয়।”-–কে, কাকে বলেছেন? বক্তা কী কারণে এই কথা বলেছেন?

[] উদ্ধৃত কথাটি অবন্তীরাজ ইন্দ্রবর্মা কৌমুদীকে বলেছেন।

[] প্রসঙ্গ—অবন্তীরাজ ইন্দ্রবর্মার কাছে বিচার চেয়ে উপস্থিত হয়েছেন কৌমুদীর বৃদ্ধ বাবা ইন্দুশর্মা। দেশাচার না-মানার জন্য বাবা রাজার কাছে মেয়ের যথোচিত শাস্তি চেয়েছেন। রাজা কৌমুদীকে স্নেহভরে বোঝানোর জন্য নানা উপদেশ দিয়েছেন। কিন্তু মেয়ে কৌমুদী অবিচল। তখন রাজা এমন মন্তব্য করেছিলেন।

[] রাজার উক্তি–কৌমুদীকে রাজা ইন্দ্রবর্মা অনেক বোঝালেন—সে যেন দেশাচার অমান্য না করে। পিতার আদেশ মেনে তাঁর পছন্দের পাত্র মকরন্দকে বিবাহ করে। অন্যথায় তার আমৃত্যু কুমারীজীবন অথবা মৃত্যুদণ্ড প্রাপ্য। সুশাসক ইন্দ্ৰবৰ্মা অল্পবয়সি সুন্দরী কৌমুদীকে বোঝান – বাবার অবাধ্য না-হয়ে সুন্দর যুবক মকরন্দকে বিয়ে করতে। যদি বাবার অবাধ্য হয় তবে দেশাচার অনুযায়ী কৌমুদীর জীবন দুর্বিষহ হয়ে উঠবে। নিয়ম পালনের বিরুদ্ধে গিয়ে কৌমুদী কখনও সুখী হবে না। কৌমুদীর এই জেদ তার কল্যাণকর হবে না এবং সুখকরও হবে না। অতএব বাবার আদেশ পালন করা উচিত। প্রেমিক ও সমব্যথী রাজা কৌমুদীকে স্নেহভরে বুঝিয়েছেন আর সুশাসক হিসাবে দেশাচার রক্ষায় কঠোর দণ্ডের কথা বলেছেন।

উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীদের শুভেচ্ছা
error: সর্বস্বত্ত্ব সংরক্ষিত